মালয়েশিয়ায় পাচারকালে কক্সবাজারে ৩৪ রোহিঙ্গা আটক

সাগরপথে মালয়েশিয়ায় পাচারকালে কক্সবাজারের কলাতলীর শুকনাছড়ি ও দরিয়ানগর সমুদ্র ঘাট থেকে ৩৪ রোহিঙ্গাকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় পাচারকাজে জড়িত একটি নৌকাও জব্দ করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার মধ্যরাতে কক্সবাজার শহরের দরিয়ানগর বড়ছড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের উদ্ধার করা হয় বলে  জানান সদর থানার ওসি ফরিদ উদ্দিন খোন্দকার।

আটককৃতদের মধ্যে ১১ জন পুরুষ, ১৫ জন নারী এবং আটজন শিশু রয়েছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি বলে জানা গেছে।

 এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ওসি ফরিদ উদ্দিন খোন্দকার বলেন, সাগরপথে মালয়েশিয়া পাচারের উদ্দ্যেশে  এক দল লোককে জড়ো করার খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল রাতে সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দালাল চক্রের লোকজন সটকে পড়ে।

তিনি বলেন, “সম্প্রতি সক্রিয় হয়ে উঠা সংঘবদ্ধ মানবপাচারকারী চক্র উখিয়া ও টেকনাফের বিভিন্ন শরণার্থী ক্যাম্প থেকে এই রোহিঙ্গাদের নিয়ে পাচারের উদ্দ্যেশ্যে জড়ো করছিল।”

এ ব্যাপারে পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গাদের আপাতত থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। পরে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে তাদের নিজ নিজ ক্যাম্পে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে।

মঙ্গলবার রাতে সাগরপথে মালয়েশিয়া পাচারের উদ্দেশ্যে কিছুসংখ্যক লোকজনকে জড়ো করা হচ্ছে- এমন সংবাদে পুলিশের একটি দল তাৎক্ষণিক অভিযান চালায়। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দালাল চক্রের লোকজন পালিয়ে গেলেও ৩৪ জন রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করা হয়।

ফরিদ উদ্দিন খোন্দকার বলেন, সম্প্রতি সক্রিয় হয়ে উঠা সংঘবদ্ধ মানবপাচারকারি চক্রের সদস্যরা উখিয়া ও টেকনাফের বিভিন্ন শরণার্থী ক্যাম্প থেকে এসব রোহিঙ্গাদের নিয়ে এসে সাগরপথে মালয়েশিয়া পাচারের উদ্দেশ্যে জড়ো করেছিল।

উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গাদের থানায় রাখা হয়েছে। পরে এসব রোহিঙ্গাদের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে স্ব স্ব ক্যাম্পে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে বলেও জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।